করোনায় জনপ্রিয় “কাড়া!” / “Kadha”: আয়ুর্বেদীক রেসিপি

হ্যালো বন্ধুরা!!!

এই করোনায় আমাদের সবার মাঝে একটি আয়ুর্বেদীক চা খুবই জনপ্রিয়তা পেয়েছে। সেটি হলো “কাড়া!” / “Kadha”। নানি দাদিদের এই আয়ুর্বেদীক রেসিপি বেশ জনপ্রিয় কিন্তু অধিকাংশই আমরা হয়তো নাম জানিনা।

আমাদের #HealthTherapy এর ষষ্ঠ ব্লগ এ আজকে এই মজার পানীয়টি নিয়ে আলোচনা করবো।

ইতিহাস :

প্রাচীন ভারত উপমহাদেশে জর থান্ডায়,বরষার মৌসুমে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে আয়ুর্বেদ বিশেষজ্ঞদের হাত ধরে এই পানীয়টির প্রচলন শুরু হয়।যেটি এখনো মহোউষধ হিসেবে ধরা হয়।আয়ুর্বেদ পাঁচশো বছর পূর্বে চলে গেছে, এবং কাড়া তৈরি ও রাখার রীতি প্রায় সেইটাই পুরানো।

প্রস্তুত প্রণালী :

কদা হল একটি আয়ুর্বেদিক পানীয় মশলা সহ সাধারণত দীর্ঘ সময় ধরে পানিতে সেদ্ধ করা হয়, যার ফলে সমস্ত ওষধি সুবিধা বের করা যায়। ভাত বা শীত ও শুষ্ক মৌসুমে অ্যালার্জি দেখা দিতে পারে বলে কদা বিশেষভাবে সহায়ক।

১ চা চামচ এলাচ
১ টেবিল চামচ দারুচিনি
১ টেবিল চামচ আদা
২/৩ কোয়া রসুন (ইচ্ছা)
১ চা চামচ কালো গোলমরিচ
১ চা চামচ কালোজিরা
১ চা চামচ লবঙ্গ
৩ কাপ জল
মধু পরিমাণ মত (ইচ্ছা)

একটি হাঁড়িতে পানিতে এলাচ, দারচিনি, শুকনো আদা এবং কালো মরিচ দিন। প্রায় 1 কাপ সমাধান না হওয়া পর্যন্ত সামগ্রীটি সিদ্ধ করুন।সিদ্ধ হয়ে গেলে আপনি দিনের বেলাতে একাধিকবার কাঁধে চুমুক দিতে পারেন। এমনকি আপনি এটি সঞ্চয় করতে পারেন এবং তারপরে খাওয়ার ঠিক আগে পুনরায় গরম করতে পারেন।খাওয়ার সময় একটু লেবুর রস ও মিশিয়ে নিতে পারেন।

উপকারিতা :

১) পেটকে শান্ত করে, হজমকে উদ্দীপিত করে।

২) অনাক্রম্যতা বাড়ায় এবং আমাদের দেহকেও ডিটক্স করে।

৩)এলাচ এবং কালো মরিচ ফ্লু এবং বিভিন্ন অ্যালার্জির সমস্যায় সহায়ক।

৪)দারুচিনি ও আদা হজমে সহায়তা করে, যা আমাদের প্রতিরোধ ক্ষমতাকে সরাসরি প্রভাবিত করে।

৫) কফ কাশি দূর করে। থান্ডায় গলা আর বুককে উপশম করে।

৬) প্রচুর অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট থাকায় ওজন ও কমাতে সাহায্য করে।

৭) কালোজিরা মরণ বাদে সকল রোগের মহোউষধ হিসেবে ধরা হয়।

নিচে কিছু ছবি দেয়া হলো।

ভালো থাকুন। দূরত্ব বজায় রাখুন।

Dr. Fatema Tabassum Anam
Health Activist & PR Officer
Tooth Fairy Foundation.